ভারতে একদিনে রেকর্ড ৩৭৮০ জনের মৃত্যু

0
74
An Indian health worker checks the temperature of a woman during lockdown to prevent the spread of new coronavirus in Ahmedabad, India, Wednesday, April 8, 2020. The new coronavirus causes mild or moderate symptoms for most people, but for some, especially older adults and people with existing health problems, it can cause more severe illness or death. (AP Photo/Ajit Solanki)

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যুর ক্ষেত্রে ফের রেকর্ড হয়েছে। করোনা মহামারিতে দেশটিতে একদিনে সর্বোচ্চ ৩ হাজার ৭৮০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশটিতে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ লাখ ২৬ হাজার ১৮৮ জনে।

বুধবার সকালে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে এ তথ্য জানা গেছে। খবর এনডিটিভির

এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছে ৩ লাখ ৮২ হাজার ৩১৫ জন। এ নিয়ে সেখানে করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ কোটি ৬ লাখ ৬৫ হাজার ১৪৮ জনে।

শনাক্ত রোগীর সংখ্যায় শীর্ষে থাকা যুক্তরাষ্ট্রের পর বিশ্বে দ্বিতীয় স্থানে আছে ভারত। আর মৃত্যুর দিক থেকে তৃতীয় স্থানে আছে বিশ্বের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ জনবহুল দেশটি।

ধারণ ক্ষমতার অতিরিক্ত রোগীর চাপে ভারতের হাসপাতালগুলোতে শৃঙ্খলা ধরে রাখা যাচ্ছে না। সঙ্গে যুক্ত হয়েছে শয্যা ও তীব্র অক্সিজেন সংকট। অক্সিজেনের অভাবে হাসপাতালগুলোতে ইতোমধ্যেই বহু রোগীর মৃত্যু হয়েছে।

এপ্রিলে নতুন করে দেশটিতে রেকর্ড ৬৬ লাখ করোনা রোগী শনাক্ত হয়। মার্চে ১০ লাখ ২৫ হাজার শানক্তের চেয়ে যা অনেক বেশি।

শুধুমাত্র এপ্রিলেই ভারতে ৪৫ হাজারেরও বেশি মানুষের করোনায় মৃত্যু হয়েছে। এর আগে মার্চে ৫৪১৭ জন, ফেব্রুয়ারিতে ২৭৭৭ ও জানুয়ারিতে ৫৫৩৬ জন করোনায় মারা যান।

ভারতে করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে দিল্লি এবং মহারাষ্ট্র। গত ২৪ ঘণ্টায় মহারাষ্ট্রে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৫১ হাজার ৮৮০ জন। আর মারা গেছে ৮৯১ জন। অন্যদিকে দিল্লিতে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছে ১৯ হাজার ৯৫৩ জন ও মারা গেছে ৩৩৮ জন।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী এ পর্যন্ত ১৯২টি দেশে ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। গত বছরের ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

ওএস/এসপি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here