বাজেটে ব্যাংক ঋণের লক্ষ্যমাত্রা কমছে

0
73

বার্তা প্রতিবেদক: আগামী ২০২১-২০২২ অর্থবছরের বাজেটে ঘাটতি মেটাতে ব্যাংকিং খাত থেকে ঋণের লক্ষ্যমাত্রা ৬ শতাংশ কমতে পারে। সরকার নতুন অর্থবছরের বাজেটে ব্যাংক থেকে ৮০ হাজার কোটি টাকা নিতে পারে বলে অর্থ মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, করোনার কারণে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির (এডিপি) প্রকল্প বাস্তবায়ন কম হওয়ায় এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে অর্থ মন্ত্রণালয়। বাজেট প্রণয়ন নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত পর্যালোচনা সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

আগামী জুনে শেষ হতে যাওয়া চলতি অর্থবছরের বাজেটে ব্যাংক ঋণের মূল লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৮৪ হাজার ৯৮০ কোটি টাকা।

বাজেট প্রণয়নের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট এক কর্মকর্তা বলেন, ‘বিশ্বব্যাংক, এশিয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি) এবং অন্যান্য উন্নয়ন অংশীদারদের কাছ থেকে ২ শতাংশ সুদ হারে ২২ হাজার কোটি টাকার বাজেট সহায়তা পাওয়ার আশ্বাসে ব্যাংক থেকে ঋণ নেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা কমানো হচ্ছে।’ এতে বেসরকারি খাতের উদ্যোক্তদের ঋণ প্রবাহ বাড়বে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

তিনি জানান, আগামী অর্থবছরের বাজেটে ঘাটতি ৬ দশমিক ১ শতাংশ হতে পারে।

বাস্তবায়ন পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগের হিসাব অনুযায়ী, করোনার কারণে দীর্ঘদিন উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ মারাত্মকভাবে বাধাগ্রস্ত হয়েছে। ফলে সরকারি বিভিন্ন সংস্থা চলতি অর্থবছরের নয় মাসের মধ্যে সংশোধিত উন্নয়ন প্রকল্পের মাত্র ৪২ শতাংশ বাস্তবায়ন করতে পেরেছে, যা এক দশকেরও বেশি সময়ের মধ্যে সর্বনিম্ন।

বাজেট ঘাটতি পূরণে ব্যাংকিং খাত থেকে ঋণ নেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা কমানোর সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানিয়ে পিডব্লিউসি বাংলাদেশের ম্যানেজিং পার্টনার মামুন-উর-রশিদ বলেন, ‘এটা সরকারে একটি ভালো সিদ্ধান্ত। এর ফলে বেসরকারি উদ্যোক্তাদের তহবিল সংগ্রহে সুবিধা হবে। দেশে বেশি সংখ্যক শিল্প প্রতিষ্ঠান স্থাপিত হলে তা কর্মসংস্থান সৃষ্টিসহ বহুমাত্রিক সফলতা বয়ে আনবে। তবে খারাপ দিক হলো, করোনাভাইরাসের জন্য দেওয়া সরকারের প্রণোদনা প্যাকেজগুলো তাদের ওপর চাপ সৃষ্টি করছে।’

এক মাস আগে সরকার চলতি অর্থবছরের মূল লক্ষ্যমাত্রা থেকে ব্যাংক ঋণের লক্ষ্যমাত্রা ৩ শতাংশেরও বেশি কমিয়ে ৮২ হাজার কোটি টাকা করেছে। তবে চূড়ান্ত পর্যায়ে তা আরও নামিয়ে নতুন বাজেটে ৮০ হাজার কোটি টাকা ব্যাংক থেকে ঋণ নেওয়ার প্রস্তাব করা হবে বলে জানা গেছে।

ওএস/আরপি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here